সেতুর পাশাপাশি তৃণমূলের সমস্যাও দেখবো: ওবায়দুল কাদের

 1477327953_54নিজস্ব প্রতিবেদক 

 আওয়ামী লীগের নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সড়ক ও সেতু দেখার পাশাপাশি এখন থেকে তৃণমূলের সমস্যাও দেখবো। তিনি বলেন, সড়ক ও সেতুমন্ত্রী হিসেবে আমি দেশের বিভিন্ন এলাকায় যাই। সেখানে তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা আমাকে বিভিন্ন সমস্যার কথা বলে, কখনও কখনও নালিশও করে। এখন যেহেতু অথরিটি পেয়েছি সেহেতু একদিকে সড়ক ও সেতু দেখবো পাশাপাশি তৃণমূলের সমস্যাও দেখবো। আমি এখন দলের নেতাকর্মীদের অভিযোগ শুনতে পারবো। সঙ্গে সমাধানও দিতে পারবো। আগে অভিযোগ শুনতাম তবে সমাধান দিতে পারতাম না। এখন আমি সেটা দিতে পারবো। দায়িত্বপালন করতে গিয়ে ঘাম-শ্রম-মেধা-শক্তি-সামর্থ্য সবকিছু উজাড় করে দেবো। নেতৃত্বের আস্থা ও বিশ্বাসের মর্যাদা রাখবো। আওয়ামী লীগ একটি বিশাল দল। এই দায়িত্ব সুবিশাল।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পরে সোমবার দুপুর দুইটায় ধানমণ্ডির প্রিয়াঙ্কা কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

একই সাথে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়া নিজের রাজনৈতিক জীবনের সর্বোচ্চ স্বীকৃতি বলে মনে করেন সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এজন্য দলের সভাপতি ও তৃণমূল থেকে আসা কাউন্সিলরদের অকুণ্ঠ ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম তার নাম ঘোষণা করায় তার ও দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে সারাদেশে উৎসবের আমেজ তৈরি হয়েছিল। ২০ তারিখ থেকেই সারাদেশের সব রাস্তা যেন এসে মিশেছিল ঢাকা শহরের মোহনায়। দলের সব নেতা-কর্মীর জিজ্ঞাসা ছিল কারা হচ্ছেন দলের পরবর্তী নেতা। এরপর আপনারা আমাকে নির্বাচিত করেছেন। এজন্য দলের নেত্রী শেখ হাসিনাসহ সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

সম্মেলনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের শৃঙ্খলাবদ্ধতা প্রকাশ পেয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের আচরণ সামনে আরও শৃঙ্খলাবদ্ধ হবে। ভবিষ্যতে আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরে আরও গুণগত পরিবর্তন হবে। আমাদের নিজেদের বদলাতে না পারলে আমরা দেশকে পরিবর্তন করতে পারবো না। আমাদের প্রত্যেক নেতাকর্মীকে নিজেদের পরিবর্তন করতে হবে।

তিনি বলেন, ইনশাআল্লাহ, ভবিষ্যতে আরও পরিবর্তন আওয়ামী লীগে হবে। আমরা যদি নিজেদের বদলাতে না পারি তাহলে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে বদলাবো কিভাবে? তিনি এজন্য দলের নেতা-কর্মীদের আচরণ বদলানোরও অনুরোধ জানান।

এ সময় সম্মেলনের চমক সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘অনেকেই চমক কী সেটা জানতে চেয়েছেন। চমক হলো আমার নাম প্রস্তাব সৈয়দ আশরাফই করেছেন। এটাই চমক। এটাই শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ম্যাজিক পাওয়ার।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি নিজেকে মন্ত্রী ভাবি না, দেশের একজন সাধারণ নাগরিক ভাবি, নিজেকে শেখ হাসিনার কর্মী ভাবি। তিনি বলেন ‘আমি পরিশ্রমের পুরস্কার পেয়েছি। রাজনৈতিক জীবনের সর্বোচ্চ পুরস্কার পেয়েছি।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরের যে লক্ষ্য সেই লক্ষ্য বাস্তবায়নে কাজ করবো। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগকে আচরণে-উন্নয়নে দেশের সেরা দল হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।

 

 এই রিপোর্ট পড়েছেন  122 - জন
 রিপোর্ট »সোমবার, ২৪ অক্টোবার , ২০১৬. সময়-৫:১৮ pm | বাংলা- 9 Kartrik 1423
WEBSBD.NET
রিপোর্ট শেয়ার করুন  »
Share on Facebook!Digg this!Add to del.icio.us!Stumble this!Add to Techorati!Seed Newsvine!Reddit!

Leave a Reply

5 + 0 =  

Chief Editor : Ln. Advocate Ferdaus Ahmed Asief  » E-mail :japaeditor82@gmail.com, abbokul@yahoo.com  » Mobile: 01765-375401, 01716-186230, Copyright © 2011 » All rights reserved.
☼ Provided By  websbd.net  » System  Designed by HELAL .
GO TOP
☼ Provided By  websbd.net  » System   Designed by HELAL .